এই শীতে মেয়েদের ত্বকের যত্ন কেমন হওয়া উচিত

 এই শীতে মেয়েদের ত্বকের যত্ন কেমন হওয়া উচিত: প্রতিনিয়ত প্রকৃতি নিয়ম বদলায় এবং দরজায় কড়া নাড়ছে শীতকাল। এবারে এই শীতে শুষ্ক ও অনুজ্জ্বল চেহারার জন্য মেয়েরা সবসময় ছেলেদের চেয়ে বেশি চিন্তিত হয়ে পড়েন। শীতকালে শুষ্ক ও শীতল হাওয়া বাতাসে বেরে যাওয়া কারণে ত্বক হয়ে যায় খসখসে এবং অমলিন সাদা সাদা ভাব। এসবের কারণে দেখা দেয় নানা রকম সমস্যা আছে মুহূর্ত ফেটে যাওয়া, ব্রণ, ত্বকের চুলকানি ইত্যাদি।

শীতে-মেয়েদের-ত্বকের-যত্ন


{tocify} $title={Table of Contents}

এবার এই শীতে মেয়েদের প্রধান কাজ হলো আগের থেকে আরও ত্বকের প্রতি বেশি যত্নবান হওয়া। অন্য সকল ঋতুর চাইতে এই ঋতুতে দরকার বাড়তি যত্ন। তবে বাড়তি কিছু সহজ পদ্ধতি অবলম্বন করলেই মুক্তি পাওয়া যাবে এই বাড়তি ঝামেলা থেকে। আজকে আলোচনা করব, কিভাবে শীতের সময় ত্বকের মসৃণতা ও উজ্জলতা ফিরিয়ে আনা যায়।


শীতে মেয়েদের ত্বকের যত্নে কিছু টিপস

শীতের সময় অন্তত সকাল-সন্ধ্যায় দুইবার ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। ভিটামিন কি যুক্ত ক্রিম গুলো ব্যবহার করা সবচাইতে ভালো।

  • অবশ্যই শীতকালের জন্য ময়েশ্চারাইজারযুক্ত ক্রিম গুলো সিলেক্ট করতে হবে ব্যবহার করার জন্য।
  • গৃষ্ম কাল এর পাশাপাশি শীতকালেও নিয়মিত সানস্ক্রিন ব্যবহার করা জরি এবং সানস্ক্রিন ক্ষতিকর সূর্য রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে।
  • শীতে বাতাসের আর্দ্রতা গৃষ্ম কাল এর চেয়ে কম থাকে ফলে ত্বকের আর্দ্রতা কমে যায় এবং তকে নানা রকম ক্ষতের সৃষ্টি হয় এ সময় গোলাপজল গ্লিসারিন ব্যবহার করা ভালো।
  • ত্বকের জন্য অলিভ অয়েল ব্যবহার করা করতে পারেন অলিভ অয়েল বা ময়েশ্চারাইজার পুরো মুখে ভালো করে ম্যাসাজ করে রাতে ঘুমিয়ে পড়তে পারেন। এতে ত্বক পরিষ্কার হবে ও সকালে দেখবেন ত্বক হয়ে উঠবে আরো প্রাণবন্ত ও মসৃণ।
  • শীতে সবচাইতে বড় সমস্যা ঠোঁট ফাটা ও কালচে হয়ে যাওয়া এর সমাধানও  গ্লিসারিন। একটা জিনিস মনে রাখবেন বারবার জিভ দিয়ে ভিজাবেন না। লিপ জেল অথবা ভেসলিন লাগাবেন রাতে ঘুমনোর আগে।
  • শীতের সকালে হালকা গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করবেন প্রতিদিন। যাতে করে মুখের তৈলাক্তভাব টা আর থাকেনা।


ঘরে বসে বানিয়ে ফেলুন ফেইস প্যাক

অন্য সকল সময়ের চেয়ে শীতের সময় ফেসপ্যাক বানাতে হবে একদম ভিন্ন ভাবে। এসময় গৃষ্ম কাল এর চেয়ে বাড়তি যত্ন নিতে হবে এবং খুব সচেতন হতে হবে। ঘরে বসে শীতে ত্বকের যত্নের জন্য জেনে নিন 2 টি ফেইস প্যাক বানানোর কৌশল-

 

1. ফ্রুট প্যাক বানানোর নিয়ম

পাকা পেঁপে, পাকা কলা ও ময়দা একসাথে পেস্ট তুই করে নিতে হবে।  এই পেজটি ১০ থেকে ১৫ দিন মুখে লাগিয়ে রেখে দিন। এরপর হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে ধৌত করুন। এই কাজটি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক হয়ে উঠবে মসৃণ ও উজ্জল প্রাণবন্ত।

 

শীতে ছেলেদের ত্বকের যত্ন কেমন হওয়া উচিত, জেনে নিন

 

2. নরমাল প্যাক বানানোর নিয়ম

এই ফেস্প্যাক তৈরিতে পাউরুটির প্রয়োজন হবে। প্রথমে পাউরুটি পানিতে দিয়ে নরম করে নিতে হবে। এর সাথে পাকা কলার চটকে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করবেন। তার সাথে চন্দন গুঁড়া মিশিয়ে নেবেন। এরপর এই মিশ্রণটি মুখে লাগাতে হবে ১০/১২ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন।


সতর্কতাঃ

ধুলাবালির কারণে এবং ত্বকের যত্ন না নেওয়ার কারণে শীতে অনেক সময় ছোট ছোট ব্রণের সৃষ্টি হয়। এই ব্রণ দূর করতে বেটামেসন এন প্লাস অথবা ক্লিনেক্স প্লাস জেল ব্যবহার করতে পারেন। এসব ব্যবহারের কারণে ত্বকের আদ্রতা দেখা দিতে পারে বলে কমে যাবে এবং রাতে অবশ্যই ভ্যাসলিন অথবা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এবারের শীতে আপনার ত্বকের সাথে আপনার প্রতিটি মুহূর্তগুলো হোক অনেক প্রাণবন্ত ও সজীব।

إرسال تعليق

أحدث أقدم

Facebook

Recent